রাতে শিশুর ভাল ঘুম নিশ্চিত করতে ১০ টি টিপস !

রাতে শিশুর ভাল ঘুম নিশ্চিত করতে ১০ টি টিপস !

(আনুমানিক পড়ার সময় ২ মিনিট)    

কিছু বাচ্চা শব্দের মধ্যে ঘুমায় এবং কিছু বাচ্চা খুব কম শব্দে ঘুম থেকে উঠে যায়। সংবেদনশীল শিশুদের রান্নাঘরে শব্দ বা সকালে জানালা দিয়ে আসা মৃদু সূর্যের আলোর আভায় ঘুম ভেঙ্গে যায়। আপনার শিশু যদি শব্দ ও আলোর প্রতি সংবেদনশীল হয় তবে তার ঘুমে ব্যাঘাত ঘটার সম্ভাবনা থাকে, সেক্ষেত্রে আপনি নিচের ১০ টি টিপস প্রয়োগ করে দেখুন।

আপনার ছোট বাচ্চাটির শান্তিপূর্ণ ঘুম নিশ্চিত করতে কার্যকর পরিস্থিতি কীভাবে তৈরি করবেন সে সম্পর্কে এখানে কিছু টিপস রয়েছে।

১. আপনি যদি আপনার সন্তানের বুকের বা প্রক্রিয়াজাত দুধ খাওয়ান, তবে মধ্যরাতের খাওয়ার অভ্যাসটি ছাড়িয়ে নিন। সেক্ষেত্রে আপনার শিশুকে ঘুমোতে যাওয়ার আগে খাইয়ে নিন। এটি আপনার বাচ্চাকে নিরবিচ্ছিন্নভাবে ঘুমাতে সহায়তা করবে।

২. দিনের বেলায় শিশুকে ক্রিয়াকলাপের মাধ্যমে একটিভ রাখুন। সূর্যের আলোর সংস্পর্শ এবং খেলাধুলা শিশুর গভীর ঘুমের সহযোগী।

৩. আপনার বাচ্চাকে রান্নাঘরের, ভ্যাকুয়াম ক্লিনারের শব্দসহ ঘরের সকল হালকা ও সাধারণ শব্দগুলোর সাথে অভ্যস্ত করে তুলুন।

৪. আপনার সন্তানের ঘুম পর্যবেক্ষণ করুন। ১ থেকে ২ বছর বয়সের শিশুদের জন্য ১০-১৩ ঘন্টা ঘুম প্রয়োজন। সাধারণত, এই ঘুমের সময়টি দিনের ন্যাপ এবং রাত্রে ঘুমের মাধ্যমে পূর্ণ হয়। আপনি যদি মনে করেন শিশুর দিনের বেলার ঘুম তার রাতের ঘুমকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে, তাহলে তার বিকেলের ঘুম কমিয়ে বা বাতিল করতে পারেন। নিশ্চিত করুন যে শিশুর দিনের ন্যাপ তিনটার মধ্যে শেষ করতে যাতে করে রাতে তার ঘুমের সময় পর্যন্ত পর্যাপ্ত সময়ের ব্যবধান থাকে।

৫. সাদা শব্দ যেমন মৃদু সংগীত, ছন্দবদ্ধ কোন শব্দ, ঘূর্ণায়মান ফ্যান ইত্যাদি আপনার বাচ্চাকে ভাল ঘুমাতে সহায়তা করতে পারে।

৬. ছোট বাচ্চারা রুটিনে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে। একটি নিয়মিত শয়নকালীন রুটিন অনুসরণ করার চেষ্টা করুন। আপনার বাচ্চাকে রাতের বা ঘুমানোর পোশাক পড়ান, ছড়া বা গল্প শুনান। দেখবেন শীঘ্রই আপনার শিশু ঘুমের সাথে এই ক্রিয়াকলাপগুলি যুক্ত করবে এবং ঘুমের জন্য প্রস্তুত হবে।

৭. রাতের সময়ের ক্রিয়াকলাপকে সিমিত রাখুন। ঘুমের সময়ের ঠিক আগে আপনার শিশুকে উত্তেজক গেমস বা ক্রিয়াকলাপে প্রবৃত্ত হওয়া হতে বিরত রাখুন। শিশুর শরীর ও মন উত্তেজিত থাকলে সে অধিক সময় পর্যন্ত জাগ্রত থাকার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

৮. তার পছন্দ অনুযায়ী তার ঘর প্রস্তুত করুন। লাইটগুলি ম্লান, তাপমাত্রা আরামদায়ক এবং তার পছন্দসই বালিশ / কম্বল / নরম খেলনা তার পাশে রাখুন। যদি আপনার বাচ্চা অন্ধকার ভয় পায় তবে তার ঘরে ডিম লাইট / মৃদু আলো রাখুন। এটি তাকে ঘুমাতে পর্যাপ্ত সহযোগিতা করবে।

৯. আপনার সন্তান যদি শব্দ ও আলোর প্রতি সংবেদনশীল হয়ে থাকে তাহলে ঘরে সাউন্ড প্রুফিংয়ের ব্যবস্থা এবং বাইরের আলোকে ব্লক করার জন্য দরজা-জানালায় আরও ঘন পর্দা ব্যবহার করতে পারেন।

১০. যদি আপনার বাচ্চা ঘরে একা ঘুমায় এবং মাঝে মাঝে একা ঘুমাতে ভয় পায়, তাকে আশ্বস্ত করুন যে আপনি বা পরিবারের অন্য সদস্যরা আশেপাশে আছেন এবং সে ডাকা মাত্রই তাঁর কাছে আসবেন।

আশা করছি এই উপায় গুলো আপনার সন্তানের ঘুমকে গভীর ও শান্তিপূর্ণ করে তুলতে সহায়তা করবে।

ছবিঃ ইমেজসবাজার।

Leave a Reply

×

Cart