প্যারেন্টিং টিপসঃ ১-৬ মাস বয়সী শিশু

প্যারেন্টিং টিপসঃ ১-৬ মাস বয়সী শিশু

(আনুমানিক পড়ার সময় ১ মিনিট ৩০ সেকেন্ড)

এক থেকে ছয় মাস বয়সী শিশুর সঠিক প্যারেন্টিং নিশ্চিত করার জন্য মা-বাবারা নিচের টিপসগুলো প্রয়োগ করে দেখুন।

১. আপনার শিশুকে দেখার, শুনার, অনুভব করার, অবাধে চলাচল করার এবং আপনাকে স্পর্শ করার সুযোগ দিন। এতে করে আপনার শিশু আস্তে আস্তে আপনার এবং তার নিজের উপরে বিশ্বাস দৃঢ় হবে।

২. আপনার সন্তানের দেখার জন্য এবং তার কাছে পৌঁছানোর জন্য রঙিন ও শব্দযুক্ত খেলনা বা আকর্ষণীয় জিনিসগুলি আপনার সন্তানের সামনে এক স্থান থেকে সরিয়ে অন্য স্থানে রাখুন। আপনার সন্তান সেগুলো দেখার এবং ধরার চেষ্টা করবে।

৩. আপনার সন্তানের সাথে হাসুন। শীঘ্রই আপনার শিশু পাল্টা হাসি হাসবে।

৪. আপনার সন্তানের সাথে কথা বলুন। তার শব্দ বা অঙ্গভঙ্গিগুলি নকল করুন। আস্তে আস্তে শিশুকে আপনার মুখের দিকে ফোকাস করান এবং আপনাকে অনুকরণ করানোর চেষ্টা করুন।   

৫. আপনার শিশুকে কোনও বিষয় অনুসরণ করতে সহায়তা করুন। যখন শিশু কোন জিনিস অনুসরণ করে, তখন সেটি আস্তে আস্তে পাশাপাশি এবং ওপর-নীচে সরান। আপনার শিশু জিনিসটি অনুসরণ করছে কিনা দেখুন।

৬. আপনার শিশুকে নিরাপদ কোন জিনিসের (যেমন খেলনা, প্লাস্টিকের বাটি বা গ্লাস ইত্যাদি) কাছে পৌঁছানোর জন্য উত্সাহিত করুন। আপনার শিশু সেই জিনিসটি স্পর্শ করতে চাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করুন।

৭. পরিচিত জিনিস, মানুষ এবং প্রাণীর সহজ কিছু ছবি কেটে আপনার সন্তানকে দিন। চেষ্টা করুন রঙিন এবং বিভিন্ন টেক্সচার, দৃশ্য এবং মুখ দেখানোর। আপনার শিশু যখন যে ছবিগুলো দেখছেন সেগুলো নিয়ে তার সাথে কথা বলুন। খেয়াল করুন আপনার সন্তান মনোযোগ সহকারে দেখছে এবং শুনছে কিনা। শিশুকে নিজের মতো করে অংশগ্রহন করতে উৎসাহিত করুন।

৮. আপনার শিশুর সাথে খেলুন। তাকে তার পেটে ভর দিয়ে রাখুন এবং আস্তে আস্তে আপনার হাতের আঙ্গুলগুলি তার দিকে হাঁটান। শিশুকে বলুন “আমার হাত তোমার দিকে আসছে, তোমাকে ধরে ফেলবে” ইত্যাদি। খেলায় পরিবর্তন আনতে আপনার আঙ্গুলগুলি আস্তে আস্তে বা দ্রুত চালনা করুন। সময় নিয়ে বাচ্চার সাথে খেলতে বসুন। তাকে পুনরায় সুড়সুড়ি দেওয়ার আগে সময় দিন। আপনার শিশু আনন্দিত কিনা দেখুন।

সুত্র – ইউনিসেফ ও অন্যান্য

Leave a Reply

×

Cart