নবজাতকের থাকার ঘরঃ

নবজাতকের থাকার ঘরঃ

আমাদের দেশে নানা কুসংস্কার ও ভ্রান্ত ধারণা প্রচলিত আছে। মুরুব্বিরা শিশু ও মায়ের উপর নজর লাগা বা খারাপ বাতাস লাগার ভয়ে ৪০ দিন মা ও শিশুকে ঘরে আবদ্ধ করে রাখে। এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা ও অত্যন্ত ক্ষতিকর একটি ব্যবস্থা।

  • নবজাতকের থাকার ঘরে অবশ্যই পর্যাপ্ত আলোবাতাস প্রবেশের ব্যবস্থা থাকতে হবে। দিনের বেলায় যেন সূর্যের আলো ঘরে প্রবেশ করতে পারে সে ব্যবস্থা থাকতে হবে।
  • শিশুর ঘরের আসবাবপত্র সবসময় পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন এবং শুকনো রাখতে হবে। শিশুর ভেজা কাপড় তার থাকার ঘরে শুকাতে দেয়া যাবে না।
  • নবজাতক শিশুর ঘরে ধুপ, ধোঁয়া, মশার কয়েল, মশার ঔষধ বা স্প্রে দেয়া যাবে না। ধূমপান সম্পূর্ণ নিষেধ।
  • নবজাতকের ঘরের তাপমাত্রা ২৫ – ২৮ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এর ভেতর রাখতে হবে। শীতকালে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণের জন্য ঘরে হিটার জ্বালিয়ে রাখা যাবে। তবে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে শিশু যেন ঘেমে না যায়।
  • নবজাতকের ঘর সবসময় নিরিবিলি এবং শব্দ দূষণ মুক্ত রাখতে হবে। যাতে শিশুর ঘুমে ব্যঘাত না ঘটে।
  •  নবজাতকের ঘরে আসবাবপত্র কম রাখা উচিত। মা ও শিশুর প্রয়োজন হবে না এমন জিনিস সরিয়ে ফেলতে হবে।
  • ঘরের মেঝে ও জানালা পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত করতে ডেটল বা স্যাভলন পানি ব্যবহার করতে হবে।

Leave a Reply

×

Cart